মঙ্গলবার, ০১ ডিসেম্বর ২০২০, ০৯:০৭ অপরাহ্ন১৬ই অগ্রহায়ণ, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ

১৫ই রবিউস সানি, ১৪৪২ হিজরি

সংবাদ শিরোনাম :
চলে গেলেন দেশের ফুটবলের অন্যতম তারকা বাদল রায় দাউদকান্দি উপজেলা চেয়ারম্যানের সহধর্মিনী রুহানী আমরীন টুম্পার সাংবাদিকদের সাথে মতবিনিময় দাউদকান্দি উপজেলা নির্বাচন ।। নৌকা প্রার্থী মোহাম্মদ আলী বিজয়ী, জামানত হারালেন বিএনপি দাউদকান্দিতে নারী ধর্ষণ ও নির্যাতন বিরোধী বিট পুলিশিং সমাবেশ দাউদকান্দি উপজেলা নির্বাচনে নৌকার গণজোয়ার সৃস্টি হয়েছে নৌকার প্রার্থীকে বিজয়ী করতে সবাইকে ঐক্যবদ্ধভাবে কাজ করতে হবে ——–মেয়র নাইম ইউসুফ সেইন বিএনপির সভায় ভোট চাইলেন আওয়ামীলীগ প্রার্থী দাউদকান্দিকে মডেল উপজেলায় রূপান্তর করতে নৌকাকে বিজয়ী করুন। —— মেজর (অব.) মোহাম্মদ আলী দাউদকান্দিতে ভিটামিন এ প্লাস কর্মসূচির উদ্বোধন দাউদকান্দির সুন্দুলপুর ইউপি চেয়ারম্যানের উদ্যোগে প্রধানমন্ত্রীর ৭৪তম জন্মদিন উদযাপন
লবণের সংকট নেই দেশে, কেবলই গুজব

লবণের সংকট নেই দেশে, কেবলই গুজব

ডেস্ক নিউজ: দেশে লবণ সংকট নেই। কেবলই গুজব ছড়িয়ে মূল্য বৃদ্ধি করা হয়েছে। এখনো সারা বছরের চাহিদার তুলনায় বেশি লবন সরকারের হাতে মজুদ রয়েছে। সম্প্রতি পেঁয়াজের মূল্য বৃদ্ধির ইস্যুকে কাজে লাগিয়ে কতিপয় অসাধু ব্যবসায়ী লবন সংকট দেখিয়ে দাম বাড়িয়ে বিক্রির পায়তারা করেছিল বলে জানিয়েছেন সংশ্লিষ্টরা। বরং উৎপাদনের তুলনায় বেশি লবন মজুদ রয়েছে, এমনটি সংশ্লিষ্টরাও জানিয়েছেন।
সিলেটের খাদিমনগগর বিসিক শিল্প নগরীর ডিজিএম সৈয়দ বখতিয়ার উদ্দিন আহমদ বলেন, সারা দেশে এখনো চাহিদার তুলনায় ৩ লাখ ২৭ হাজার মেট্টিক টন লবন বেশি মজুদ রয়েছে।
তিনি বলেন, সারা দেশে লবনের বার্ষিক চাহিদা ১৬ লাখ ৫৭ হাজার মেট্টিক টন। এর বিপরীতে এ বছর উৎপাদন হয়েছে ১৮ লাখ ২৪ হাজার মেট্টিক টন। আর গত বছরের অবিক্রিত লবন রয়েছে ১ লাখ ১৬ হাজার মেট্টিক টন। সব মিলিয়ে ১৯ লাখ ৮৪ হাজার মেট্টিক টন লবন সরকারের হাতে মজুদ রয়েছে। বার্ষিক চাহিদার তুলনায়ও এখনো ৩ লাখ ২৭ হাজার মেট্টিক টন মিলিয়ে এখনো সাড়ে ৬ লাখ টন লবন বেশি মজুদ রয়েছে সরকারের হাতে।
সৈয়দ বখতিয়ার উদ্দিন আহমদ বলেন, এর বাইরেও আরো ৪/৫ লাখ মেট্টিক টন লবন পাইকারী ও খুচরা বাজারে রয়েছে। এ বিষয়টি জেলা প্রশাসনকেও অবহিত করেছেন তিনি।
তিনি আরো জানান, গত কোরবানির ঈদের সময় চামড়া প্রক্রিয়াজাত করণ ইস্যুকে কাজে লাগিয়ে লবন সংকট দেখিয়ে দাম বাড়ানোর চেষ্টা করেন চট্রগ্রামের কতিপয় ব্যবসায়ী। যেটা তারা প্রতিহত করতে পেরেছেন। এবারো সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমকে কাজে লাগিয়ে লবন সংকট দেখিয়ে দাম বাড়ানোর চেষ্টা করা হচ্ছে। দেশবাসীকে গুজব থেকে সজাগ থাকার আহ্বান জানান তিনি।
পেঁয়াজের মূল্য বৃদ্ধির পর সোমবার সন্ধ্যা রাতে সিলেটের বাজারে লবন সংকটের গুজব ছড়িয়ে বেশি দামে বিক্রি করা হয়। হঠাৎ করে লবনের দাম বেড়ে যাওয়ায় ক্রেতারা ভীড় করেন বিভিন্ন দোকানে। নিমিষেই লবন সংকটের বিষয়টি শহর থেকে গ্রামেও ছড়িয়ে পড়ে। ফলে ব্যবসায়ীরা লবন উচ্চ দামে বিক্রি শুরু করেন। এদিন সিলেটের বাজারে ১শ’ থেকে দেড়শ’ টাকায় লবন বিক্রি হয়। দাম বাড়ার কারণে লোকজন অতিরিক্ত দামেও চাহিদার তুলনায় বেশি লবন কিনতে শুরু করেন।
এদিকে গুজবের সুযোগ কাজে লাগিয়ে বাজারে কৃত্রিম সংকট সৃষ্টির চেষ্টা করেন ব্যবসায়ীরা। বিশাল মুনাফার আশায় অনেকে দোকানের লবন সরিয়ে নিয়েছেন। এ অবস্থায় সরকারের একটি গোয়েন্দা সংস্থা নগরের কালিঘাট পাইকারি বাজার তদারকিতে গিয়ে ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত হন। এসময় নগরীর কালীঘাট এলাকায় একটি দোকান থেকে বিভিন্ন কোম্পানির ৫০ বস্তায় ৪৫০ কেজি লবন জব্দ করেন। এ ঘটনায় দোকান মালিককে ৪৫ হাজার টাকা জরিমানা অনাদায়ে ১৫ দিনের কারাদ- দেওয়া হয়।
জেলা প্রশাসনের সহকারি কমিশনার ও নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট মো. মেজবাহ উদ্দিন এ তথ্য নিশ্চিত করে বলেন, তাৎক্ষনিক জরিমানা আদায়ক্রমে মামলার নিস্পত্তি হয়। তিনি বলেন, এরপর নগরের কালিঘাট এলাকা থেকে দু’টি হাতা গাড়ি করে ১ হাজার কেজি লবন পরিত্যাক্ত অবস্থায় জব্দ করা হয়।
সদর উপজেলার এসিল্যান্ড সুমন্ত ব্যানার্জি বলেন, ওই দোকানী প্রতি বস্তা ২১৬ টাকা বেশি দামে লবণ বিক্রি করছিলেন, এমন প্রমাণ পাওয়া গেছে। সিলেট মহানগর পুলিশের অতিরিক্ত উপ কমিশনার (মিডিয়া) জেদান আল মুছা বলেন, যারাই গুজব ছড়াবে, তাদের বিরুদ্ধে কঠিন অ্যাকশনে যাবে পুলিশ।

শেয়ার করুন
  • 11
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  





themesba-zoom1715152249
© "আমাদের দাউদকান্দি" কর্তৃক সর্বসত্ত্ব সংরক্ষিত।
Developed By: Nagorik IT