তিতাসে নারীর লাশ উদ্ধার


প্রকাশের সময় : সেপ্টেম্বর ১, ২০২১, ৮:২১ অপরাহ্ণ
তিতাসে নারীর  লাশ উদ্ধার

হালিম সৈকত, তিতাস

 

কুমিল্লার তিতাসে শাহনাজ বেগম (৪৫) নামে এক নারীর  লাশ উদ্ধার করেছে পুলিশ । আজ বুধবার বেলা ১১টায় উপজেলার ভিটিকান্দি গ্রামের ঈদগা এলাকার  প্রবাসী লোকমান মিয়ার পরিত্যক্ত বাড়ী থেকে ওই নারীর লাশ উদ্ধার করে তিতাস থানা  পুলিশ।

শাহনাজ বেগম পোড়াকান্দি গ্রামের আসামুদ্দিনের স্ত্রী।  সে ৫ সন্তানের জননী।

এলাকাবাসী সূত্রে জানা যায়, শাহনাজ বেগম মঙ্গলবার রাত আনুমানিক সাড়ে ৯ টায় তার মেঝো ছেলে সাব্বির (১৯)কে খোঁজতে বের হয়ে আর ঘরে ফিরে আসেনি। রাত থেকে  তার স্বামী ও ছেলে মেয়েরা অনেক খোজ খুঁজি করেও পায়নি। আজ বুধবার সকালেও বিভিন্ন জায়াগায় খুজতে থাকে তার স্বজনরা। পরে বেলা আনুমানিক বেলা ১১টায় শাহনাজ এর বসবাসরত বাড়ি থেকে ২০০ মিটার দূরে প্রবাসী লোকমান মিয়ার পরিত্যক্ত বাড়ির সামনে থেকে শাহনাজকে পুরো শরীর ভেজা অবস্থায় পড়ে থাকতে দেখে পুলিশকে খবর দেয় এলাকাবাসী। নিহতের  শরীরে কোন আঘাতের চিহ্ন না থাকলেও তার বাঁ চোখ একেবারে উপড়ে গেছে। এদিকে এলাকাবাসী ধারনা করছে শাহনাজ এর লাশটি পানিতে ছিলো কেউ না কেউ উপরে তুলে রাখছে।

শাহনাজের স্বামী কৃষক আসামুদ্দিন বলেন, কারো সাথে আমাদের কোন ঝগড়া বিবাদ নেই, রাতে আমার মেজো ছেলেকে খুজতে বের হয়েছিলো। সারারাত খোঁজাখুঁজির পর  তাকে পাইনি।  সকাল ১০ টার দিকে আমার ছোট ছেলে আর বড় মেয়ে ফোন করে জানান লাশ তারা পেয়েছে।   পোড়াকান্দি গ্রামের সমাজসেবক শফিকুল ইসলাম বলেন, মহিলাটি খুব ভালো ছিলেন।  কারো সাথে কোন রকম ঝগড়াঝাটি ছিল না।  এক কথায় ভালো মানুষ ছিলেন।

তিতাস থানার  ওসি সুধীন চন্দ্র দাস জানান, খবর পেয়ে নিহতের লাশ থানায় নিয়ে আসি। তবে তার শরীরে আঘাতের কোন  চিহ্ন পাওয়া যায়নি। ধারনা করা হচ্ছে  লাশটি পানিতে পরে ছিলো, কেউ হয়তো তুলেছে। বাম চোখটি মাছে খেতে পারে। ময়নাতদন্তের রিপোর্ট আসলে বিস্তারিত জানা যাবে।

 

শেয়ার করুন
error: কপিরাইট এর আওতাধীন!!