বৃহস্পতিবার, ০৩ ডিসেম্বর ২০২০, ১০:৫১ পূর্বাহ্ন১৮ই অগ্রহায়ণ, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ

১৭ই রবিউস সানি, ১৪৪২ হিজরি

সংবাদ শিরোনাম :
কুমিল্লা উত্তর জেলা আ’লীগের ধর্ম বিষয়ক সম্পাদক হলেন মোতাহার হোসেন মোল্লা কুমিল্লা উত্তর জেলা আওয়ামী লীগের পূর্ণাঙ্গ কমিটি অনুমোদন চলে গেলেন দেশের ফুটবলের অন্যতম তারকা বাদল রায় দাউদকান্দি উপজেলা চেয়ারম্যানের সহধর্মিনী রুহানী আমরীন টুম্পার সাংবাদিকদের সাথে মতবিনিময় দাউদকান্দি উপজেলা নির্বাচন ।। নৌকা প্রার্থী মোহাম্মদ আলী বিজয়ী, জামানত হারালেন বিএনপি দাউদকান্দিতে নারী ধর্ষণ ও নির্যাতন বিরোধী বিট পুলিশিং সমাবেশ দাউদকান্দি উপজেলা নির্বাচনে নৌকার গণজোয়ার সৃস্টি হয়েছে নৌকার প্রার্থীকে বিজয়ী করতে সবাইকে ঐক্যবদ্ধভাবে কাজ করতে হবে ——–মেয়র নাইম ইউসুফ সেইন বিএনপির সভায় ভোট চাইলেন আওয়ামীলীগ প্রার্থী দাউদকান্দিকে মডেল উপজেলায় রূপান্তর করতে নৌকাকে বিজয়ী করুন। —— মেজর (অব.) মোহাম্মদ আলী
জনগণকে ঝুঁকিতে ফেলে ‘মুজিববর্ষ উদযাপন নয়’

জনগণকে ঝুঁকিতে ফেলে ‘মুজিববর্ষ উদযাপন নয়’

নিজস্ব প্রতিবেদকঃ জনকল্যাণ মাথায় রেখে ১৭ মার্চ মুজিববর্ষের মূল অনুষ্ঠান আপাতত না করার সিদ্ধান্ত নিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। তিনি বলেছেন, পরিবারের সবাই মিলে সিদ্ধান্ত নিয়েছি- উদযাপন করবো, কিন্তু ঝুঁকিতে ফেলে নয়।

সোমবার (৯ মার্চ) সন্ধ্যায় গণভবনে আওয়ামী লীগের কেন্দ্রীয় কার্যনির্বাহী সংসদের সভায় প্রধানমন্ত্রী একথা বলেন।

মুজিববর্ষের উদযাপন সংক্ষিপ্ত ও পুনর্বিন্যস্ত করা প্রসঙ্গে প্রধানমন্ত্রী বলেন, করোনাভাইরাসের কারণে অনেক দেশের অনেক গুরুত্বপূর্ণ অনুষ্ঠান স্থগিত হয়েছে। আমন্ত্রিত অতিথিরা নিজ দেশের পরিস্থিতির কারণে আসতে পারছেন না।

প্রধানমন্ত্রী বলেন, দেশে ৩ জন করোনা আক্রান্ত শনাক্তের পর বৈঠক করে সিদ্ধান্ত নিয়েছি, বেশি লোকসমাগম হবে এমন অনুষ্ঠানগুলো পরে করা হবে। পরিস্থিতি বুঝে সিদ্ধান্ত নেয়া হবে। যেন কোনোভাবে সমস্যা না হয়, গতকাল পরিবারের সবাই মিলে সিদ্ধান্ত নিয়েছি। উদযাপন করবো। কিন্তু ঝুঁকিতে ফেলে নয়। জনকল্যাণ মাথায় রেখে মূল অনুষ্ঠান আপাতত না করার সিদ্ধান্ত নিয়েছি।

তিনি বলেন, মুজিববর্ষের উদযাপন বিশাল করে করার প্রস্তুতি নিয়েছিলাম। করোনাভাইরাসের কারণে ২৬ মার্চ শিশুদের অনুষ্ঠানটিও বাতিল করেছি। অন্য অনুষ্ঠানগুলো করবো। ঢাকা ও টুঙ্গিপাড়া মিলে সংক্ষিপ্তভাবে ১৭ মার্চের অনুষ্ঠান করব। বড় অনুষ্ঠানগুলো ধাপে ধাপে হবে। জনসমাগম হয়, এমন অনুষ্ঠানগুলো আপাতত স্থগিত করেছি। পরবর্তী তারিখ ঠিক করে আমরা উদযাপন করব।

শেখ হাসিনা আরও বলেন, করোনাভাইরাস নিয়ে আমাদের প্রস্তুতি আছে। বিমানবন্দর ও স্থলবন্দরে প্রস্তুতি আছে। করোনাভাইরাসে আক্রান্ত দেশগুলোতে ভিসা দেয়া বন্ধ থাকবে। দেশে প্রভাব যেন না পড়ে, এর ব্যবস্থা নিচ্ছি। আমরা টিভিগুলোতে প্রচার করাচ্ছি। মানুষকে সচেতন করে যাচ্ছি।

প্রধানমন্ত্রী বলেন, করোনাভাইরাসের কারণে আতঙ্কিত হওয়ার কিছু নেই। এই রোগ প্রতিরোধ ও প্রতিকারে আমরা ব্যবস্থা নিচ্ছি। আমরা ঢাকার তিনটি হাসপাতাল ও জেলা-উপজেলার হাসপাতালগুলো প্রস্তুত রেখেছি।

তিনি বলেন, অহেতুক মাস্ক পরার দরকার নেই। কিন্তু সবসময় পরিষ্কার-পরিচ্ছন্ন থাকতে হবে। অনেকেই পাগল হয়ে মাস্ক কিনছে। এটা করার দরকার নেই। শুধু যাদের সর্দি-কাশি আছে তাদের সাবধানে থাকতে হবে।

শেয়ার করুন
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  





themesba-zoom1715152249
© "আমাদের দাউদকান্দি" কর্তৃক সর্বসত্ত্ব সংরক্ষিত।
Developed By: Nagorik IT